খুব ক্লান্ত লাগছে ইফতার এর পর ?

আসলে দীর্ঘ সময় না খেয়ে থাকার পর ইফতারে কিছু খাওয়ার পরই ‘অসম্ভব’ ক্লান্তি বোধ করাটা খুবই স্বাভাবিক। সামান্য কিছু খাবার গ্রহনের পরই মনে হয় বিশ্রাম নিতে ইচ্ছে হয় এবং এই ক্লান্তিতে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। ছোট্ট কিছু নিয়ম মেনে চললেই ক্লান্তিভাব এড়িয়ে রমজানে ভালো থাকা সম্ভব।

১. কিছুটা কম খাওয়া: ইফতার এ কিছুটা কম খেয়ে বরং ইফতার আর রাতের খাবার দুটোই গ্রহন করা ভালো। একবারে বেশি খাবার ক্লান্তিভাব বাড়ায়।

২. স্বাস্থকর মেন্যু: সম্ভব হলে ভাজা পোড়া একেবারেই বাদ দিয়ে ফল, সবজি, আটার রুটি, চিড়া, বাসায় বানানো স্যুপ, হালিম খেতে হবে। ছোলা – মুড়ি বা পেঁয়াজু মাঝে মাঝে খাওয়া যেতে পারে তবে অবশ্যই অল্প তেলে ভাজা হতে হবে। একটি/দুটি খেজুর ও শক্তি জোগাতে অনন্য।

৩. সঠিক পানীয় গ্রহন: লেবু দিয়ে অল্প চিনিতে তৈরী শরবত আর সাথে সাদা পানি, সবচেয়ে ভালো। তবে একবারে বেশি না খেয়ে অল্প অল্প করে বারবার পানি পান খেতে হবে। কোমল পানীয় বা ইফতার এর পর চা কফি খাওয়া একেবারেই উচিত নয়, খুব প্রয়োজন মনে হলে বেশ খানিকটা সময় পরে গ্রিন টি বা অল্প আদা দিয়ে রং চা খাওয়া যেতে পারে।

৪. বিশ্রাম: ১৫ থেকে ২০ মিনিটের বিশ্রাম অবশ্যই নেয়া উচিত, যা শরীরের ক্লান্তভাব দূর করতে সহায়তা করবে।

৫. সঠিক সেহরি: সেহরিতে বেশি ঝাল-মসলা খাবার বাদ দিয়ে বরং ভাত, মাছের ঝোল, ডাল, সবজি খাওয়া ভালো। এতে সারাদিন শরীর ক্লান্ত হবে কম, আর ইফতারের পর ক্লান্তি বোধ হবে না।

সঠিক খাবার গ্রহন করুন, সুস্থ থাকুন রমজানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *